শিরোনাম :
বর্ষীয়ান আ.লীগ নেতা আ: মতিন সরকার এর ৩য় মৃত্যুবার্ষিকী আজ মনোহরদী উপজেলা প্রেসক্লাবের কমিটি গঠন || শাকিল সভাপতি – সাধারণ সম্পাদক আজমিরী বিদেশিদের কথায় বিএনপি আন্দোলন করে না : ড. মঈন খান নরসিংদীতে আনোয়ার গ্রুপ অব ইন্ডাস্ট্রিজের হালখাতা অনুষ্ঠিত  রেলওয়ের টিকিটে ডিজিটাল প্রতারণা! আয়ূবপুর ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান আব্দুস সাত্তার আর নেই রাঁতের আাধারেই ক্রীড়া সংস্থার কমিটি গঠিত।। হতাশ নরসিংদীর ক্রীড়ামোদীরা রজবেন্নেছা আমজাদ স্মৃতি পাঠাগারে শহিদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালিত পবিত্র শবেবরাত আজ শিবপুরে আইডিয়েল কে.জি এন্ড হাই স্কুলের বার্ষিক ক্রীড়া প্রতিযোগিতা ও পুরস্কার বিতরণ
সোমবার, ০৪ মার্চ ২০২৪, ০৪:০৯ পূর্বাহ্ন

নরসিংদী সদর উপজেলার চরাঞ্চলের উন্নয়নে নির্মিত বিভিন্ন প্রকল্পের উদ্বোধন

আশিকুর রহমান / ১৫৮ বার
আপডেট : বুধবার, ১১ অক্টোবর, ২০২৩

নরসিংদীর সদর উপজেলার মেঘনা নদী বেষ্টিত দূর্গম চরাঞ্চল নজরপুর, করিমপুর, আলোকবালি ও চরদিঘলদী ইউনিয়নের বেড়িবাঁধ, ব্রীজ, স্কুল, প্রাথমিক বিদ্যালয়, পাকা রাস্তা সহ বেশ কয়েকটি উন্নয়ন প্রকল্পের উদ্বোধন ও ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করলেন নরসিংদী সদর-১ আসনের সাংসদ বীর মুক্তিযোদ্ধা মোহাম্মদ নজরুল ইসলাম হিরো (বীর প্রতীক) এমপি।
বুধবার (১১ অক্টোবর) সকাল ১১টায় গ্রামীন অবকাঠামো ও জীবনমান উন্নয়ন প্রকল্প এবং করিমপুর ইউনিয়ন পরিষদের আওতায় নজরপুর ইউনিয়নের চেঙ্গাতলী বাজার-আলীপুরা সড়কে সুতানলী খালের উপর নির্মিত ৯৯ মিটার পিসি গাডার ব্রীজ, করিমপুর ছফুরা খাতুন বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের চারতলা ভবন নির্মাণ, রসুলপুট-শুটকিকান্দী- জগৎপুর-বগারগোত গ্রামের নদী ভাঙ্গন রোধে বেড়িবাঁধ নির্মাণ, রসুলপুর উচ্চ বিদ্যালয়ের দ্বিতল ভবন নির্মাণ, কে কে নেকজানপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, চরদিঘলদী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ও দোয়ানি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় নির্মাণ, রসুলপুর চেয়ারম্যান বাজার-সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় পর্যন্ত প্রায় দেড় কি.মি. রাস্তা কার্পেটিং, রাস্তাসহ পাইপ ড্রেন নির্মাণ, বাউশিয়া- পঞ্চবটি বাজার পর্যন্ত প্রায় আড়াই কি.মি. রাস্তা আরসিসি করণ সহ বেশ কয়েকটি নতুন রাস্তার নির্মাণের উদ্বোধন করেন তিনি। বেলা আড়াইটায় করিমপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মমিনুর রহমান আপেলের বাড়িতে মধ্যাহ্ন ভোজে অংশ নেন। পরে বিকেল ৪টায় মোহাম্মদ নজরুল ইসলাম হিরো (বীর প্রতীক) এমপি রসুলপুর উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে করিমপুর, নজরপুর, আলোকবালি ও চরদিঘলদী ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ ও সহযোগী সংগঠনের যৌথ উদ্যোগে শান্তি ও উন্নয়নের সমাবেশ নামে এক বিশাল জনসভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত হোন। চরদিঘলদী ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি শওকত আলী প্রধান এর সভাপতিত্বে ও ইউপি চেয়ারম্যান দেলোয়ার হোসেন শাহিন এর সঞ্চালনায় এতে উপস্থিত ছিলেন, নরসিংদী জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি মোন্তাজ উদ্দিন ভূঁইয়া, বীর মুক্তিযোদ্ধা আমিরুল ইসলাম ভূঁইয়া, করিমপুর ইউপি চেয়ারম্যান মমিনুর রহমান আপেল, আলোকবালি ইউপি চেয়ারম্যান দেলোয়ার হোসেন সরকার দিপু, নজরপুর ইউপি চেয়ারম্যান সাইফুল ইসলাম স্বপন, হাজীপুর ইউপি চেয়ারম্যান ও ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ সভাপতি ইউসুফ খান পিন্টু, সাধারণ সম্পাদক শাহাদাৎ হোসেন, নজরপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ সভাপতি বাদল সরকার ও সাধারণ সম্পাদক জহিরুল ইসলাম সরকার জহির।
এসময় নজরুল ইসলাম হিরো এমপি বলেন, সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ বাঙালি, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান উন্নত ও সমৃদ্ধ সোনার বাংলা গড়ার স্বপ্ন দেখেছিলেন। বাংলাদেশের অর্থনীতি শক্তিশালী করাই ছিল বঙ্গবন্ধুর আজীবন লালিত স্বপ্ন। তার এই স্বপ্নকে বাস্তবায়ন করতে তারই কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে দ্রুত গতিতে দেশের উন্নয়ন কর্মকাণ্ড চলছে। এই উন্নয়ন কর্মকান্ড অব্যাহত থাকলে আগামী দশকের মধ্যে বিশ্বের কাছে স্মার্ট বাংলাদেশ হিসেবে পরিচিতি লাভ করবে। সে লক্ষ্য নিয়েই এগোচ্ছে সরকার। শহরের পাশাপাশি গ্রামীণ অবকাঠামো, যোগাযোগ ব্যবস্থার উন্নয়নে নিরলসভাবে কাজ করছেন শেখ হাসিনা। দেশে যে উন্নয়ন হয়েছে সেটিও বর্তমান সরকার টানা কয়েক বছর ক্ষমতায় থাকার কারণেই হয়েছে। উন্নয়নের এই ধারা অব্যাহত রাখতে আগামী নির্বাচনে আবারও নৌকাকে ভোট দিতে হবে। তিনি আরও বলেন, গ্রাম আজ শহরে পরিণত হয়েছে। তা একমাত্র শেখ হাসিনার কল্যাণেই হয়েছে। তিনি জাতিকে ঐক্যবদ্ধ করে উন্নত সোনার বাংলা গড়ার পথে অগ্রসর হচ্ছেন। এ লক্ষ্যে তিনি বাংলাদেশকে সমৃদ্ধির কাঙ্ক্ষিত গন্তব্যে নিয়ে যেতে নিরন্তর প্রচেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন। বাংলাদেশের উন্নয়নের চলমান ধারা অব্যাহত রাখতে আপনারা নৌকায় ভোট দিয়ে শেখ হাসিনাকে প্রধানমন্ত্রী নির্বাচিত করলে শেখ হাসিনার ঘোষিত রূপকলের বাস্তবায়ন সম্ভব হবে বলে আমার বিশ্বাস।

দিনব্যাপী এসব উন্নয়ন কর্মকাণ্ড ও কর্মসূচিতে নরসিংদী সদর-১ আসনের সাংসদ মোহাম্মদ নজরুল ইসলাম হিরো (বীর প্রতীক) এর সাথে উপস্থিত ছিলেন, জেলা আওয়ামী লীগ নেতা বীর মুক্তিযোদ্ধা মোবারক হোসেন, এসএম কাইয়ুম, ওলিউর রহমান আজিম, জেলা শ্রমিক লীগের আহ্বায়ক মোঃ রিপন সরকার, জেলা তাঁতী লীগের আহ্বায়ক কায়কোবাদ হোসেন কানু, জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি আহসানুল ইসলাম রিমন, সাধারণ সম্পাদক শাহজালাল আহমেদ শাওন, সাবেক ছাত্রলীগ নেতা ভিপি মিয়া মোঃ মঞ্জুর, জুবায়ের আহমেদ জুয়েল, সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান আব্দুল বাকির, খাদেমুল ইসলাম প্রমুখ। এছাড়াও শহর ও থানা আওয়ামী লীগ, ছাত্রলীগ, যুবলীগ, মহিলা আওয়ামী লীগ, শ্রমিক লীগ, কৃষক লীগ ও তাঁতী লীগের নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।
চরাঞ্চলের বিভিন্ন ইউনিট থেকে দলীয় নেতাকর্মীরা রংবেরঙের ফেস্টুন, ব্যানার ও বাদ্যযন্ত্র সহকারে বর্ণিল সাজে সজ্জিত হয়ে মিছিল নিয়ে সমাবেশ স্হলে উপস্থিত হতে থাকেন। বেলা বাড়ার সাথে সাথে নেতাকর্মীদের উপস্থিতি ছিল চোখে পড়ার মতো। অল্প সময়ের মধ্যে সমাবেশের মাঠ পরিপূর্ণ হয়ে যায়। মাঠে স্হান না পেয়ে অধিকাংশ নেতাকর্মী মিছিল নিয়ে আশপাশের রাস্তাগুলোতে দাড়িয়ে থাকতে দেখা যায়।
সমাবেশে আসা সিদ্দিক মিয়া নামে ৭০ উর্ধ্বে বয়সী স্হানীয় এক বাসিন্দা বলেন, আমার প্রিয়নেতা মোহাম্মদ নজরুল ইসলাম হিরো কে একনজর দেখতে এ সমাবেশ আইছি। অনেক দিন ধরে তাকে দেহি না। আজ কাছ থেকে দেখতে পেরে অনেক আনন্দ লাগছে। তিনি আরও বলেন, দেশ স্বাধীনের পর আমাদের কথা কেউ চিন্তা করছেনা। ভোটের সময় খালি ভোট চায়। তারপর আর কোনো খবর থাকে না। আওয়ামী লীগ সরকর ও শেখের বেটি নির্বাচনে পাশ করার পর আমাদের চরাঞ্চলের উন্নয়ন হয়েছে। এখন ঘর থেকেই গাড়িতে ওঠে শহরে যাই। আগে কারেন্ট ছিলনা কিন্তু এখন কারেন্ট আছে। পাকা রাস্তা, ব্রীজ, বেড়িবাঁধ, স্কুল সহ সবকিছুই এখন আমরা চরবাসী পাইছি। শেখের বেটি শেখ হাসিনার কল্যাণেই এমন উন্নয়ন সম্ভব হয়ছে। আর তা বাস্তবায়ন করেছেন আমাগো হিরো এমপি। চরাঞ্চলের মানুষ কোনো দিন চিন্তা করতে পারছে না এত উন্নতি হইবো। আল্লাহ হিরো এমপিরে বাঁচাইয়া রাখ। দোয়া করি আল্লাহ যেন হিরো এমপিরে আবার এমপি নমিনেশন দেন। আল্লাহ যদি বাঁচাইয়া রাহে সামনের নির্বাচনে আবার নৌকা মার্কায় ভোট দিমু আর হগলরে কমু নৌকা মার্কায় ভোট দিতো।

Facebook Comments Box


এ জাতীয় আরো সংবাদ