শিরোনাম :
নরসিংদীতে বইমেলার উদ্বোধন রায়পুরা উপজেলা প্রেসক্লাবের উদ্যোগে শীতবস্ত্র বিতরণ নরসিংদীতে সাধু সঙ্গ অনুষ্ঠিত নরসিংদীর শীলমান্দীতে প্রধান শিক্ষকের হাতে শিক্ষিকা লাঞ্ছিত জার্মানে মোশাররফ হোসেন ভূইয়ার লেখা দুটি বইয়ের মোড়ক উন্মোচন করলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা নরসিংদীতে স্ত্রী হত্যায় পলাতক স্বামীকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ নরসিংদীতে আ.লীগ নেতা এড. আসাদোজ্জামানের স্মরণ সভা অনুষ্ঠিত শালুরদিয়া প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ক্রীড়া প্রতিযোগিতা সম্পন্ন আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উপলক্ষে সৃজনশীল মেধা প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে জার্মানির চ্যান্সেলর এর বৈঠক
শনিবার, ২৪ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ১২:২৫ পূর্বাহ্ন

নরসিংদীতে ভোটের মাঠে চোখ অর্ধশতাধিক প্রার্থীর

স্টাফ রিপোর্টার : / ৭৫২ বার
আপডেট : বৃহস্পতিবার, ৩ আগস্ট, ২০২৩

দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন ঘিরে সরগরম হয়ে উঠেছে নরসিংদীর রাজনৈতিক অঙ্গন। প্রার্থিতা জানান দিতে অনেক আগেই মাঠে নেমে পড়েছেন আওয়ামী লীগের মনোনয়ন প্রত্যাশীরা। দলীয় কর্মকা-ে সরব উপস্থিতি সহ সামাজিক কর্মকা-ে অংশ নিচ্ছেন তারা। কোনো কোনো প্রার্থী অসহায়দের সেলাই মেশিন সহ নানা উপকরণ বিতরণ করছেন। মসজিদ মাদ্রাসায় অনুদান বাড়িয়ে দিচ্ছেন।
নরসিংদীতে ৫ টি সংসদীয় আাসন। বর্তমানে জেলার পাঁচটি সংসদীয় আসনই আওয়ামী লীগের দখলে রয়েছে। আগামী নির্বাচনে ও সব কটি আসনই পেতে চায় দলটি। তবে আসন পুনরুদ্ধার করে হারানো গৌরব পুনরুদ্ধার করতে চায় বিএনপি। আর একক নির্বাচন করতে চায় জাতীয় পার্টি, জামায়াতে ইসলামী, ইসলামি ঐক্যজোট সহ ক্ষুদ্র দলগুলো।
আওয়ামী লীগের জেলার নীতি-নির্ধারকরা বলছেন, তারা পাঁচটি আসনই ধরে রাখতে কাজ করছে। সে অনুযায়ী জেলা, উপজেলা ও ইউনিয়ন কমিটিগুলোকে ঢেলে সাজানো হয়েছে। অংগ ও সহযোগী সংগঠনকে ও ঢেলে সাজানো হচ্ছে। বিএনপি’র নেতৃবৃন্দ বলছে, নিরপেক্ষ সরকারের অধীনে নির্বাচন হলে মানুষ বিএনপি প্রার্থীদের বিপুল ভোটে বিজয়ী করবে। নরসিংদী হল বিএনপি ঘাঁটি। রাতের এবং ভোটাবিহীন নির্বাচনে আওয়ামীলীগের পাচটি সিট ঠিক আছে কিন্তু অতীত ইতিহাস বলে, সুষ্ঠ ও গ্রহণযোগ্য নির্বাচন হলে আওয়ামীলীগ একটি সিট ও পাবে না।
খোঁজ নিয়ে জানা যায়, সকল দলের মনোনয়নপ্রত্যাশী নেতারা দল ও এলাকায় যোগাযোগ বাড়িয়ে দিয়েছেন। কারা দলীয় প্রার্থী হতে পারেন এ নিয়ে নেতা-কর্মীদের মধ্যেও আলোচনা চলছে। জনগন ও চায়ের টেবিলে ঝড় তুলছে, কে পাবেন বিএনপি, আওয়ামীলীগের নমিনেশন। এ দিকে কিছু কিছু প্রার্থী এলাকায় অনুপস্থিত থাকলেও নির্বাচনে প্রার্থী হতে পারেন বলে জানা গেছে।
নরসিংদী-১ (সদর) : আসনটিতে আওয়ামী লীগ থেকে মনোনয়নপ্রত্যাশীদের মধ্যে রয়েছেন সাবেক পানিসম্পদ প্রতিমন্ত্রী ও বর্তমান এমপি মোহাম্মদ নজরুল ইসলাম হিরু (বীরপ্রতীক), জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি তালেব হোসেন, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের ভাইস চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. মো. গিয়াস উদ্দিন, যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা আইয়ুব খান সরকার মন্টু, শহর আওয়ামী লীগের সভাপতি কামরুজামান কামরুল। এ ছাড়া ও চমক হিসেবে সাবেক সিনিয়র সচিব ও এনবিআরের সাবেক চেয়ারম্যান বর্তমানে জার্মানে নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত মোশাররফ হোসেন ভূঁইয়ার কথাও তৃণমূল নেতা-কর্মীদের মুখে শোনা যাচ্ছে। তাদের ধারনা দ্বিধাবিভক্ত জেলা আওয়ামী লীগের ঐক্য প্রতিষ্ঠা করতে এবং নরসিংদীর সিট ধরে রাখতে মোশাররফ হোসেন ভূইয়ার বিকল্প নাই। সাধারন ভোটারা মনে করছে, পদ্মাসেতুর ষড়যন্ত্র নিয়ে তিনি জাতীর জন্য যে ত্যাগ স্বীকার করেছেন, প্রধানমন্ত্রী নিশ্চই এর প্রতিদান দিবেন। তবে প্রার্থিতার বিষয়ে তিনি নিজে কোনো কথা বলেননি।
বিএনপি থেকে মনোনয়নপ্রত্যাশী দলের যুগ্ম মহাসচিব ও জেলা বিএনপির আহ্বায়ক খায়রুল কবির খোকন। তবে পরিবর্তিত পরিস্থিতিতে দুইজন দলীয় কর্মী হত্যাকান্ডের আসামী হওয়ায় এখানে ও কোন চমক আছে কি না, তা বলা যাচ্ছে না। তবে নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক কয়েকজন জানান, এখানে মনজুর এলাহী অথবা অবু সালেহ চৌধুরী আসলে অবাক হওয়ার কিছু থাকবে না। জাতীয় পার্টি থেকে নির্বাচন করতে চান দলীয় জেলার সাবেক সভাপতি শফিকুল ইসলাম।
নরসিংদী-২ (পলাশ) : এ আসনের বর্তমান এমপি পলাশ উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ডা. আনোয়ারুল আশ্রাফ খান দীলিপ। তিনি আগামী নির্বাচনেও দলীয় প্রার্থী হতে চান। তবে তার ভাই সাবেক এমপি কামরুল আশ্রাফ খান পোটনও আওয়ামী লীগের অন্যতম মনোনয়নপ্রত্যাশী। জেলা জাসদের সভাপতি জায়েদুল কবির আওয়ামী লীগের নেতৃত্বাধীন ১৪ দলীয় জোট থেকে প্রার্থী হতে চান। আলতামাশ মিশু ও আওয়ামী লীগের পার্থী হলে অবাক হবার কিছু থাকবে না। বিএনপি থেকে মনোনয়নপ্রত্যাশীর মধ্যে রয়েছেন সাবেক মন্ত্রী ও দলের স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. আবদুল মঈন খান। তবে জেলা বিএনপির যুগ্ম আহ্বায়ক এড. আব্দুল বাছেদ ভুইয়া ও নমিনেশন চাইতে পারেন।
নরসিংদী-৩ (শিবপুর) : জহিরুল হক ভূঁইয়া মোহন এ আসনের বর্তমান এমপি। এবারও তিনি মনোনয়ন চাইবেন। এ ছাড়া আওয়ামী লীগ থেকে মনোনয়নপ্রত্যাশীর তালিকায় রয়েছেন সাবেক এমপি সিরাজুল ইসলাম মোল্লা, আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবক লীগের ন্দ্রীয় কমিটির সাংগঠনিক সম্পাদক আ ফ ম মাহবুবুল হাসান ও সাবেক এমপি রবিউল খান কিরনের ছেলে ফজলে রাব্বি।
বিএনপি থেকে মনোনয়নপ্রত্যাশীদের তালিকায় রয়েছেন শিবপুর উপজেলা বিএনপির সভাপতি আবুল হারিছ রিকাবদার, গত নির্বাচনে বিএনপির প্রার্থী জেলা বিএনপির সদস্য সচিব মঞ্জুর এলাহী, জেলা বিএনপির সাবেক সাধারণ সম্পাদক তোফাজ্জল হোসেন মাস্টার ও কেন্দ্রীয় ছাত্রদলের সাবেক সাধারণ সম্পাদক আকরামুল হাসান মিন্টু। তবে মনজুর এলাহীর নমিনেশন প্রায় নিশ্চিত।
জাতীয় পার্টি থেকে মনোনয়নপ্রত্যাশীদের মধ্যে রয়েছেন প্রবীণ নেতা অ্যাডভোকেট রেজাউল করিম বাছেদ এবং শিবপুর উপজেলা সভাপতি এস এম জাহাঙ্গীর পাঠান।
নরসিংদী-৪ (মনোহরদী-বেলাবো) : এ আসনের বর্তমান এমপি শিল্পমন্ত্রী নুরুল মজিদ মাহমুদ হুমায়ুন। আগামী নির্বাচনেও তিনি অন্যতম মনোনয়নপ্রত্যাশী। এ ছাড়া কেন্দ্রীয় শিল্প ও বাণিজ্য উপকমিটির সাবেক সদস্য ও জেলা আওয়ামী লীগের কার্যনিবাহী সদস্য অহিদুল হক আসলাম সানী, জেলা আওয়ামী লীগের সহ সভাপতি ডা. আবদুর রউফ সরদার, কেন্দ্রীয় যুবলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক কাজী মাজহারুল ইসলাম দলীয় মনোনয়ন চাইবেন। বিএনপি থেকে মনোনয়ন চাওয়ার তালিকায় রয়েছেন সাবেক এমপি সরদার সাখাওয়াত হোসেন বকুল, কেন্দ্রীয় বিএনপির মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক সম্পাদক কর্নেল (অব.) জয়নাল আবেদীন এবং কেন্দ্রীয় স্বেচ্ছাসেবক দলের সাধারণ সম্পাদক আবদুল কাদের ভূঞা জুয়েল।
নরসিংদী-৫ (রায়পুরা) : সাবেক ডাক ও টেলি যোগাযোগমন্ত্রী রাজি উদ্দিন আহমেদ রাজু এ আসনের বর্তমান এমপি। আবারও মনোনয়ন চাইবেন দলের এই প্রবীণ নেতা। এ ছাড়া দলীয় মনোনয়নপ্রত্যাশীদের তালিকায় রয়েছেন জেলা আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় নেতা রিয়াজুল কবির কাওছার, কেন্দ্রীয় যুবলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক হারুন-অর-রশিদ, জেলা আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা সালাহ উদ্দিন আহমেদ বাচ্চু, জেলা আওয়ামী লীগের সহসভাপতি মোহাম্মদ সামছুল হক, কেন্দ্রীয় যুবলীগের কার্যনির্বাহী সদস্য তৌফিকুর রহমান এবং কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগের বন ও পরিবেশ বিষয়ক উপকমিটির সাবেক সদস্য রিয়াদ আহাম্মেদ সরকার। বিএনপির মনোনয়নপ্রত্যাশীদের মধ্যে রয়েছেন কেন্দ্রীয় বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিষয়ক সম্পাদক মো. আশরাফ উদ্দিন বকুল এবং উপজেলা বিএনপির সাবেক আহ্বায়ক জামাল আহমেদ চৌধুরী। সাবেক মন্ত্রী মাইনুদ্দিন ভুঁইয়ার ছেলে রুহেল ভুইয়া।

Facebook Comments Box


এ জাতীয় আরো সংবাদ